বাংলা ভাষাকে সর্বোচ্চ মর্যাদায় আসীন করতে হবেঃ বিভাগীয় কমিশনার

বাংলার সকাল ডেস্কবাংলার সকাল ডেস্ক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৭:৫৪ PM, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

ষ্টাফ রিপোর্টারঃ  রাজশাহী জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে আজ জাতীয় জীবনে একুশের চেতনা শীর্ষক আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক পরিবেশনা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়। মঙ্গলবার (২১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিভাগীয় কমিশনার ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

সভায় বিভাগীয় কমিশনার বলেন, ৫২’র ভাষা আন্দোলন বাঙালির ইতিহাসে এক অনন্য অধ্যায়। এর মাধ্যমে তৈরি হয়েছে বাঙালি জাতির সাহস। সেই সাহসে বলিয়ান হয়েই মুক্তিযোদ্ধারা মুক্তিসংগ্রামে অবতীর্ণ হয়েছিল এবং সেই পথ ধরে তাঁরা মাত্র ৯ মাসে বাংলাদেশ স্বাধীন করেছিল। তাই আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে বাংলা ভাষাকে সর্বোচ্চ মর্যাদার আসনে আসীন করতে হবে।

ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর বলেন, ভাষা আন্দোলনের পথ ধরে স্বাধীনতা অর্জন এবং পরবর্তী সময়ে একুশের চেতনায় বাংলা ভাষা আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে স্থান লাভ করেছে, এই অর্জন জাতি হিসেবে আমাদের বড় অর্জন ও গৌরবের। তিনি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও শহিদ দিবসের গৌরবোজ্জ্বল ঘটনা বিস্তারিত তুলে ধরেন।
রাষ্ট্রভাষার আন্দোলনে রাজশাহীর আন্দোলনের অবদান অপরিসীম উল্লেখ করে ভাষাসৈনিক মোশাররফ হোসেন আখুঞ্জী প্রধান আলোচক হিসেবে সভায় বক্তৃতা করেন। রাজশাহী কলেজ থেকেই এখানে আন্দোলনের সূত্রপাত হয়েছিল বলে তিনি জানান।

এ সময় ভাষা আন্দোলনের সকল শহিদ, বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জাতীয় চার নেতাসহ মুক্তিযুদ্ধে শহিদ সকলকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করা হয়।

আলোচনা সভা শেষে শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে অনুষ্ঠিত চিত্রাঙ্কন, রচনা, আবৃত্তি ও দেশাত্মবোধক সংগীত প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

আপনার মতামত লিখুন :