১৮৪ ফিলিস্তিনি নিহত যুদ্ধবিরতির পর গাজায় হামলায়

বাংলার সকাল ডেস্কবাংলার সকাল ডেস্ক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০২:১৫ PM, ০২ ডিসেম্বর ২০২৩

বাংলার সকাল ডেস্কঃ ইসরায়েল ও হামাসের মধ্যে সাত দিনের সাময়িক যুদ্ধবিরতির মেয়াদ শেষ হওয়ার পর গাজায় ইসরায়েলি হামলায় ১৮৪ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও অন্তত ৫৮৯ জন। হতাহতদের মধ্যে বেশিরভাগই নারী ও শিশু।

শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) সকাল থেকে শেষ বেলা পর্যন্ত এই হামলা চালানো হয়। আল-জাজিরার খবরে গাজার স্বাস্থ্যবিষয়ক কর্মকর্তাদের বরাতে জানানো হয়েছে, হামলায় এ পর্যন্ত গাজায় ১৮৪ জন নিহত হয়েছেন। গাজার স্বাস্থ্যবিষয়ক কর্মকর্তারা আরও জানিয়েছেন, ইসরায়েলি হামলায় আহত হয়েছেন ৫৮৯ জন। কমপক্ষে ২০টি ঘরবাড়িতে হামলা চালানো হয়েছে।

এদিকে ইসরায়েলি হামলার জবাবে হামাস ও ইসলামিক জিহাদসহ গাজার স্বাধীনতাকামী সংগঠনগুলো ইসরায়েলের সীমান্তবর্তী এলাকা লক্ষ্য করে রকেট ও মর্টার হামলা চালিয়েছে। এ সময় ইসরায়েলের পাঁচ সেনা আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

গাজায় গত ২৪ নভেম্বর শুরু হওয়া চার দিনের যুদ্ধবিরতি দুই দফা বাড়িয়ে সাত দিন করা হয়। মেয়াদ বাড়াতে আন্তর্জাতিক চাপ ও হামাসের পক্ষ থেকে নতুন করে প্রস্তাব দেওয়া হলেও রাজি হয়নি ইসরায়েল।

ইসরায়েল সেনাবাহিনী গতকাল দাবি করেছে, ‘হামাস যুদ্ধবিরতির শর্ত লঙ্ঘন করেছে। পাশাপাশি তারা ইসরায়েলি ভূখণ্ড লক্ষ্য করে হামলা চালিয়েছে। পরে ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা বাহিনী গাজা উপত্যকায় হামাসের বিরুদ্ধে আবারও হামলা শুরু করেছে।’

অন্যদিকে, গাজায় আবারও যুদ্ধবিরতি কার্যকর হবে, এমন আশা ব্যক্ত করে জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, ‘গাজায় আবারও সামরিক অভিযান শুরু হওয়ায় আমি অত্যন্ত মর্মাহত।’ ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেন, ‘আমরা নিশ্চিতভাবে মানবিক যুদ্ধবিরতির মেয়াদ আরেক দফা বাড়ানোর খবরই পছন্দ করব।’

আপনার মতামত লিখুন :